ঘরোয়া পদ্ধতিতে সুস্বাদু চিকেন ওটস হালিম রান্না করা শিখে নিন

ঘরোয়া পদ্ধতিতে সুস্বাদু চিকেন ওটস হালিম রান্না করা শিখে নিন
Wikimedia Commons

রোজার দিনে অনেকেই ওজন কমাতে পারেন না। দেখা যায়, সারাদিন রোজা রাখার পর অনেক ইফতারে তাড়াহুড়ো করে ভাজা খাবারের অংশ বেশি থাকে। কিন্তু এভাবে উল্টোপাল্টা খেলে বদ হজম ও ওজন বৃদ্ধির সমস্যা চলতেই থাকবে। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে একটি খুব সহজ ইফতার রেসিপি শেয়ার করতে যাচ্ছি, যা খুবই সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর। আর তা হল চিকেন ওটস হালিম।

চিনি, লেবুর শরবত বা ডাবের পানি ছাড়াও ৩-৪টি খেজুর দিয়ে এই চিকেন ওটসের হালিম তৈরি করলে খুব ভালো ইফতার হয়। এতে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল যা সারাদিনের আপনার শারীরিক চাহিদা পূরণ করার পাশাপাশি আপনার শরীরকে অনেক শক্তি দেবে। চলুন দেখে নেই চিকেন ওটস হালিম বানাতে কি কি লাগবে-

চিকেন ওটস হালিম বানানোর নিয়ম

চিকেন ওটস হালিম রান্নার উপকরণ


(১) মুরগির বুকের মাংস- ২০০ গ্রাম

(২) ওটস- ১.৫ কাপ

(৩) সমপরিমাণ মুগ ডাল, মসুর ডাল, কলাই ডালের মিশ্রণ- ১.৫ কাপ

(৪) পেঁয়াজ- ২টি

(৫) রসুনের পেস্ট- ১ টেবিল চামচ

(৬) আদার পেস্ট- ১/২ টেবিল চামচ

(৭) হালিম মসলা- ৩ চা চামচ (১ চা চামচ গরম মসলা গুঁড়া, এক চা চামচ ধনে গুঁড়া, ১ চা চামচ ভাজা জিরা গুঁড়া, ১/৩ চা চামচ হলুদ গুঁড়া, ১/৩ চা চামচ কালো মরিচ গুঁড়া)

(৮) লবণ - স্বাদমতো

(৯) ২-৩টি কাঁচা মরিচ

(১০) ধনে পাতা - প্রয়োজন মত

(১১) লেবু - টুকরো করে কাটা

(১২) তেল (অলিভ অয়েল/রাইস ব্র্যান অয়েল/সানফ্লাওয়ার অয়েল)-১ টেবিল চামচ

(১৩) জল- ১/২ লিটার


চিকেন ওটস হালিম রান্নার পদ্ধতি

১) প্রথমে একটি প্যানে তেল গরম করুন এবং ২ টি কাটা পেঁয়াজ লাল হওয়া পর্যন্ত ভাজুন এবং একটি বেরেস্তা তৈরি করুন।

২) মাঝারি আঁচে ১০ মিনিটের জন্য সেই তেলে লবণযুক্ত মুরগির টুকরোগুলি ছোট টুকরো করে ভাজুন।

৩) তারপর মুরগির টুকরোগুলো নিয়ে তেলে একে একে সব মসলা দিয়ে ভেজে নিন এবং সব ডাল তাতে পরিমাণমতো লবণ ও পানি ঢেলে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে ডাল সিদ্ধ করুন, প্রায় আধা ঘণ্টা পর নামিয়ে ফেলুন। ঢাকনা দিন এবং ওটস, সবুজ মরিচ যোগ করুন এবং ভাজা মুরগি যোগ করুন এবং একটি ঢাকনা দিয়ে আবার ঢেকে আরও পাঁচ মিনিট রান্না করুন।

৪) রান্না হয়ে গেলে, কাটা ধনে পাতা, কাঁচা মরিচ এবং লেবুর রস ছিটিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকর চিকেন ওটস হালিম!

আশা করি সবাই বাসায় বানাতে চেষ্টা করবেন। আজকের মত এখানেই শেষ করছি। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।


রেফারেন্স: shajgoj.com


পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
মন্তব্য নেই
মন্তব্য যোগ করুন
comment url